ক্রেডিট কার্ডের ঋণ শোধ করার সবচেয়ে ভালো উপায় কি?




বাংলাদেশে প্রায় ৪০ শতাংশ পরিবার ক্রেডিট কার্ডে ঋণ বহন করে। এবং ক্রেডিট কার্ডের ঋণের ব্যালেন্স গড়ে  ১৫০০০ টাকার ওপরে থাকে। যার সুদের হার ২০ শতাংশ পর্যন্ত হতে পারে। এই সুদের হারের বোঝাটা অনেকের কাছেই গুরুত্বপূর্ণ।

যদি আপনি ভেবে থাকেন এ বছর যত দ্রুত সম্ভব আপনি ঋণ শোধ করে ফেলবেন তাহলে আপনি হয়তো ওই লোকগুলোর মধ্যে একজন যারা অন্য ক্রেডিট কার্ডে ব্যালেন্স ট্রান্সফার করে অথবা ব্যাক্তিগত লোণ নিয়ে কড়া সুদের ক্রেডিট কার্ডের ঋণ পরিশোধ করেন। কোনটা উত্তম উপায়? আশা করি নিচের প্রশ্নের উত্তরগুলো আপনাকে সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করবে।

(১) আপনার ক্রেডিট কার্ডের স্কোর কত?

আপনার একটা ভাল ক্রেডিট স্কোর না থাকলে আপনি হয়তো ভাল সুদে ব্যালেন্স ট্রান্সফার করার যোগ্য নাও হতে পারেন। অন্য দিকে, অনেক স্বাধীন ব্যাক্তিগত লোণ সরবরাহকারীগন “ কিভাবে একজনকে লোণ পরিশোধ করতে হবে” নির্ধারণ করার ক্ষেত্রে সাধারন ব্যাংক বা ক্রেডিট ইউনিয়নের চাইতে ভিন্ন নির্ণায়ক ব্যবহার করে থাকেন, যদি আপনার ঝামেলাহীন ক্রেডিট কার্ড না থাকে কিন্তু আপনি অর্থনৈতিক বিষয়ে দায়িত্বশীল হয়ে থাকেন তবে ব্যালেন্স ট্রান্সফারের চেয়ে ব্যাক্তিগত ঋণে ভাল ফল পেতে পারেন। 

(২) আপনার ঋণ পরিশোধ করতে এটি কত সময় নেবে?

ব্যক্তিগত ঋণ ও ক্রেডিট কার্ড ব্যালান্স স্থানান্তর সাধারণত একটি লোণের উৎপত্তি বা ব্যালেন্স ট্রান্সফার ফি চার্জ করে। ক্রেডিট কার্ড বা ব্যাক্তিগত লোণে এই চার্জের পরিমাণ মত ঋণের ১ থেকে ৫ শতাংশ হতে পারে। যদি আপনি ক্রেডিট কার্ডের প্রচারমূলক সুদের হারে ঋণ পরিশোধ করার নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ঋণ পরশোধ করতে পারেন,তাহলে অন্য সময় আপনাকে যে সুদ দিতে হত সুদের পরিমাণ তার থেকে কম হবে।যাই হোক, একটা ঋণ এক বছর বা তার কম সময়ে শোধ করার জন্য, সুদ এবং লোণ উত্তোলন ফি অতটা নয়। এ কারনে বেশীরভাগ ঋণ পরিশোধ করার জন্য যে ঋণ গুলো নেয়া হয় তাদের সময়সীমা থাকে ৩৬ থেকে ৬০ মাস। 

(৩) যদি আপনাকে সর্বনিম্ন অর্থের চেয়ে বেশি অর্থ পরিশোধ করতে হয় আপনি কি পারবেন?

বেশিরভাগ ক্রেডিটকার্ডের ব্যালেন্স ট্রান্সফারের একটা আকর্ষণীয় প্রচারমূলক সুদের হার রয়েছে। এমনকি সেটা ০% ও হতে পারে। যদিও এই সুদের হার সীমিত সময়ের জন্য।যদি আপনি ১২ থেকে ২৪ মাসের মধ্যে আপনার ঋণ পরিশোধ করতে না পারেন ঋণ সরবরাহকারী  সুদের হার বাড়ানো শুরু করবেন।বর্তমানে ক্রেডিট কার্ডের গড় সুদের হার  ১৬.৩৫%। যদি আপনি ৫০০০ টাকা ট্রান্সফার করেন আপনাকে অন্তত মোট টাকার ৩%  অর্থাৎ ১৫০ টাকা  দিতে হবে। যদি আপনাকে শুধু সর্বনিম্ন হারে সুদ দিতে হয় তাহলে ২৪ মাসে আপনাকে মাত্র ২৬০০ টাকা দিতে হবে এর কারণ সর্বনিম্ন সুদের হার আস্তে আস্তে কমতে থাকে যখন আপনি সময়মত ব্যালেন্স শোধ করতে থাকেন। যখন প্রচারমূলক হারের সময় শেষ হয়ে যায়, ঋণ সরবরহাকারী সুদ ধার্য করা শুরু করবেন। এটা আরো ৬ বছরের কাছাকাছি সময় নেবে ব্যালেন্স শোধ করার জন্য এবং আপনাকে অতিরিক্ত ১১০০ টাকা সুদ দিতে হবে। সম্পূর্ণ ৫০০০ টাকা ২ বছরে শোধ করতে প্রতি মাসে আপনাকে ২১০ টাকা দিতে হবে। অন্যদিকে ব্যক্তিগত লোণে ২৪ মাসে ৫০০০ টাকা শোধ করতে আপনাকে ১০% সুদ দিতে হবে যার পরিমাণ দাঁড়ায় মাসিক ২৩০ টাকা।

(৪) পুনরায় ঋণ নেয়া থেকে বিরত থাকার জন্য আপনার কোন পরিকল্পনা আছে কি?

ব্যাক্তিগত লোণ কিংবা অন্য ক্রেডিট কার্ডে ঋণ  ট্রান্সফারের আগে আপনার বাজেট এবং অভ্যাস নির্ধারণ করুন। প্রথমবার আপনাকে কেন ঋণ করতে হয়েছিল ? একই পরিস্থিতিতে পুনরায় সম্মুখীন হওয়া এড়াতে আপনার কোন কৌশল বা পরিকল্পনা আছে?আপনার আর্থিক লক্ষ্য  এবং  অগ্রাধিকারগুলো বিবেচনা করুন।সাধারন এবং ছোট বাজেট প্রনয়ন এবং ব্যবহার করা শিখুন।একটা জরুরী ফান্ড রাখুন।এই পদক্ষেপগুলোর জন্য হয়তো বাড়তি উপার্জন অথবা আপনার দৈনন্দিন খরচ থেকে কিছু সঞ্চয়ের কিংবা কিছু অভ্যাস পরিবর্তনের প্রয়োজন।

(৫) আপনি কি একই কোম্পানির ইস্যু করা দুটি ক্রেডিট কার্ডে ব্যলেন্স ট্রান্সফারের পরিকল্পনা করছেন?

বেশীরভাগ ক্রেডিট কার্ডে ঋণ সরবরাহকারীগন একই কোম্পানির দুটি কার্ডের মধ্যে ব্যালেন্স ট্রান্সফারের অনুমতি দেয় না সেক্ষেত্রে ব্যক্তিগত ঋণ আপনার সর্বোত্তম উপায় হতে পারে।

(৬)বর্তমান ঋণের কিছুটা পরিশোধ করা কি সম্ভব?

আপনি যদি কিছুটা হলেও ঋণ পরিশোধ করার কথা ভেবে থাকেন তাহলে ব্যালেন্স ট্রান্সফার বা ব্যক্তিগত লোণ কোনটাই আপনার জন্য সঠিক অপশন নয়। যদি আপনার পরিস্থিতি এরকম হয় সেক্ষেত্রে ঋণ আপস (বন্দোবস্ত) বা ক্রেডিট কাউন্সেলিং নিয়ে আলোচনা করার জন্য একটি বিশ্বাসযোগ্য ঋণ ত্রাণ প্রদানকারীর সাথে কথা বলতে পারেন।

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এবং কার্যকরী সিদ্ধান্ত হচ্ছে, ঋণ পরিশোধের জন্য  ক্রেডিট কার্ডের ব্যলেন্স ট্রান্সফার বা ব্যক্তিগত ঋণ নেয়া কোনটাই করবেন না। আপনার অবশ্যই একটা বাজেটের ওপর নির্ভর করা উচিৎ এবং  আপনার নিজের সাথে অঙ্গীকার করা উচিৎ ঋণ শোধ করার জন্য।

Kamrunnahar Dana এর ছবি

About the Author

About: 

আমি ডানা, জাহাংগীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে কম্পিউটার সায়েন্স বিষয়ের ওপর এমএস করছি। জীবনের লক্ষ্য বাবার একজন সার্থক সন্তান, বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন সার্থক স্নাতক, সার্থক চাকুরীজীবি এবং ভবিষ্যতে একজন সার্থক গৃহিণী, সার্থক মা সর্বোপরি একজন সার্থক আমি হওয়া।